মাতৃত্বকালীন ভাতা ২০২৩-২০২৪ । গর্ভবতী ভাতা কত টাকা পাওয়া যায়?

বাংলাদেশ সরকারের মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর কর্তৃক গর্ভবতী ভাতা প্রদান করা হয়ে থাকে। মূলত এটি দরিদ্র নারীদের জন্য একটি সামাজিক নিরাপত্তা স্কীম যা মা ও শিশু পুষ্টি চাহিদা ও গর্ভকালীন সেবা যত্নের জন্য একটি প্রকল্পের মাধ্যমে ইউনিয়ন পরিষদের মাধ্য প্রদান করা হয়। আরও একটু বিস্তরভাবে বলা যায় যে, শহর এলাকার দরিদ্র কর্মজীবী দুগ্ধদায়ী মা এবং তাঁদের শিশু- দের সামাজিক নিরাপত্তা বলয়ের মাধ্যমে সার্বিক জীবন যাত্রার মান উন্নয়ন ও কর্মজীবী উপকারভোগী দরিদ্র মা’দেরকে ০৩ (তিন) বছর (দুই সন্তানের ক্ষেত্রে) ব্যাপি প্রতিমাসে ৮০০/-টাকা করে ভাতা প্রদান করা হয়। দরিদ্র মা’র জন্য মাতৃত্বকাল ভাতা প্রদান কর্মসূচী ২০১১

দরিদ্র মা’র জন্য মাতৃত্বকাল ভাতা প্রদান কর্মসূচী ২০২৪

বাজেট বরাদ্দ সাপেক্ষে সোনালী ব্যাংক এ মাতৃত্বকাল ভাতা নামের একাউন্টে জমা প্রদান করা হয়। পরবর্তীতে ভাতাভোগীদের মাঝে ভাতার অর্থ প্রেরণের লক্ষ্যে জেলা উপজেল উপজেলা মহিলা বিষয়ক কমর্কতা ও উপজেলা নিবাহী অফিসার যৌথ স্সাক্ষরে পরিচালিত মাদার একাউন্ট হতে স্ব-স্ব ভাতা ভোগীদের নামে (১০ টাকার হিসাব খোলা হয়) সংশ্লিষ্ট ব্যাংকে একাউন্ট পেয়ী চেকের মাধ্যমে প্রেরণ করা হয়। নির্বাচিত উপকারভোগী প্রতিজন ১ম অথবা ২য় গর্ভধারনকালের যে কোন একবার মোট ২ বছর মেয়াদের জন্য ভাতা ও প্রশিক্ষণ সেবা পাবে। নির্বাচিত ভাতাভোগীকে মাসিক জনপ্রতি ৮০০.০০ (আটশত টাকা) হারে ভাতাভোগীদের নিজস্ব ব্যাংক হিসাবে ৬ মাস পর পর মোট ২৪ মাসের অর্থ প্রদান করা হয়। এ ভাতা প্রাপ্তির ক্ষেত্রে আবেদন ফরমে জেলা/উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার কার্যালয় বরাবর আবেদন করতে হয়। Matritokal vatar abedon potr.docx

গর্ভবতী ভাতা প্রাপ্তির জন্য কাগজপত্র ২০২৪

২০২২-২০২৩ অর্থ বছরে দরিদ্র মার জন্য মাতৃত্বকাল ভাতা প্রদান কর্মসূচীর আওতায় নতুন উপকার ভোগী নির্বাচন করা হবে। ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি, ৩ কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি, গর্ভ করন বিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার নিকট হতে সনদসহ সকাল আবেদন পরবর্তী সময়ে যোগাযোগ করতে হবে। ইউনিয়ন গর্ভবতী কার্ড এর মাধ্যমে ম্যানুয়াল পদ্ধতিতে ইউপিতে গর্ভবতী ভাতা প্রদান করা হয়।

মাতৃত্বকালীন ভাতা ভোগী হওয়ার শর্তাবলী ২০২৪

  1. প্রথম বা দ্বিতীয় গর্ভ ধারন কাল হতে হবে।
  2. বয়স ২০ হতে ৩৫ বছরের মধ্যে।
  3. দরিদ্র, প্রতিবন্ধী মা অগ্রাধিকার পাবেন।
  4. মোট মাসিক আয় ১৫০০ টাকা নিম্নে।
  5. কেবল বসত বাড়ী রয়েছে বা অন্যের জায়গায় বসবাস করে।
  6. উপকার ভোগী নির্বাচনের সময় অর্থাৎ জুলাই ২০২৩ উপকার ভোগীকে অবশ্যই ৫ মাস গর্ভবর্তী থাকতে হবে।

আবেদন করলেই আপনি ভাতা পাবেন ব্যাপারটি এমন নয়। আবেদনপত্র ও শর্তাবলী অনুসারে কমিটির বিবেচনা সাপেক্ষে আবেদন মঞ্জুর ও ভাতা প্রদান করা হবে। পল্লী মাতৃকেন্দ্র সুদমুক্ত ঋণ ২০২৩ । ৪৯২ টি উপজেলায় প্রায় ১২ কোটি টাকা বরাদ্দ প্রদান করা হয়েছে

মাতৃত্বকালীন ভাতা তালিকা ২০২৪

মাতৃত্বকালীন ভাতা

ইউপি বা পৌর সভা তাদের নোটিশ বোর্ড ও ইউপি ওয়েবসাইটে এমনভাবে তালিকা প্রকাশ করা হয়। তালিকা অনুসারে ভাতা তাদের নিজ ব্যাংক একাউন্ট এবং মোবাইল ব্যাংকিং এ নিজ হাতে চলে আসে।

শিশু ভাতা অনলাইন আবেদন ২০২৪

পল্লী অঞ্চলের দরিদ্র ও সুবিধাবঞ্চিত গর্ভবতী মহিলাদের অসহায়ত্বের কথা বিবেচনা করে তাদের আর্থিক ও সামাজিক সুরক্ষা দেয়ার জন্য ২০০৭-০৮ অর্থবছর হতে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার দরিদ্র মা’র জন্য মাতৃত্বকালীন ভাতা প্রদান কর্মসূচি গ্রহন করেছে। মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর, বাংলাদেশ মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় কর্তৃক এই কর্মসূচিটি বাস্তবায়িত হয়ে আসছে।এই কর্মসূচি বাস্তবায়নে অধিকতর স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা বা উপকারভোগীর প্রাপ্তি নিশ্চিত করার লক্ষ্যে অর্থ বিভাগ, অর্থ মন্ত্রনালয় কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন Strengthening Public Financial Management for Social Protection (SPFMSP) শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় এই MIS টি তৈরি হয়েছে যা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর এবং কর্মসূচির সাথে সংশ্লিস্টগণ ব্যবহার করেন। ম্যানুয়াল আবেদন ফরম সংগ্রহ করুন এখানে ক্লিক করে

একই সিস্টেমের মাধ্যমে বহু সংখ্যক ভাতা সংক্রান্ত কর্মসূচি ব্যবস্থাপনা করার সুবিধা রয়েছে। ডিজিটাল উপায়ে ভাতার আবেদন, আবেদন মঞ্জুরীর কার্যপ্রবাহ (প্রাথমিক বাছাই, ডাবল ডিপিং যাচাইকরণ, অগ্রাধিকারকরণ, মাঠ পর্যায় যাচাইকরণ এবং চূড়ান্ত বাছাই), ভাতাভোগীর কার্ড প্রিন্ট, প্রশিক্ষণ, অভিযোগ, ভাতা সংক্রান্ত বাজেট এবং ব্যয়িত অর্থের তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভিন্ন রকম রিপোর্ট ও বিশ্লেষণধর্মী পরিসংখ্যান একটিমাত্র ওয়েবসাইটের মাধ্যমে করা হয়ে থাকে। অনলাইনে ২০২২-২৩ অর্থ বছরের আবেদনের জন্য অপশন এখনও খোলা হয়নি। নতুন আবেদন করতে এখানে ক্লিক করুন: অনলাইন আবেদন

বি:দ্র: ২০২৩-২৪ সিলেক্ট করে নতুন আবেদন সম্পন্ন করুন। তবে পূর্বে যারা আবেদন করেছেন তাদের পুন: আবেদন করার প্রয়োজন নেই।

 

 

https://bdservicerules.info/%e0%a6%ae%e0%a6%be%e0%a6%a4%e0%a7%83%e0%a6%a4%e0%a7%8d%e0%a6%ac%e0%a6%95%e0%a6%be%e0%a6%b2%e0%a7%80%e0%a6%a8-%e0%a6%ad%e0%a6%be%e0%a6%a4%e0%a6%be/

ibas2

I am a web developer who is working as a freelancer. I am living in Dhaka, a crowded city of Bangladesh. I am working to help for ibas++ user solving problems of it. My site: Technicalalamin.com

ibas2 has 315 posts and counting. See all posts by ibas2

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *