পেনশনারদের জন্য সুখবর – পেনশনারদের যেমন হিসাবরক্ষণ অফিসে গিয়ে পেনশন তুলতে হয়না। এখন ব্যাংক একাউন্টে মাস গেলেই পেনশন পাওয়া যায়। প্রতি মাসের ৫ তারিখে সরকারি অবসর প্রাপ্ত কর্মচারীগণ পেনশন পেয়ে থাকেন ব্যাংক হিসাবের মাধ্যমে। প্রতি ১১তম মাসে হিসাবরক্ষণ অফিসে গিয়ে আর লাইভ ভেরিফিকেশন বা বেচে আছেন কিনা তা আর প্রুফ করতে হবে না।

বেসামরিক পেনশনারগণ- সকল পেনশনার চিকিৎসাভাতা, উৎসবভাতা, নববর্ষভাতা পেয়ে থাকেন এবং কিছু কিছু ক্ষেত্রে বিশেষ ভাতা হিসাবে প্রশংসাসূচক ভাতা, পদক ভাতা প্রদান করা হয়ে থাকে। সামরিক পেনশনাগণ: সকল পেনশনার চিকিৎসা ভাতা, উৎসব ভাতা, নববর্ষ ভাতা, রেশন ভাতা, শিশু ভাতা পেয়ে থাকেন এবং কিছু কিছু ক্ষেত্রে বিশেষ ভাতা হিসাবে প্রশংসা সূচক ভাতা, পদক ভাতা প্রদান করা হয়ে থাকে। Pensioner Verification App। ঘরে বসে লাইফ ভেরিফিকেশন করুন

EFT ছাড়া ম্যানুয়ালি চেকের মাধ্যমে মাসিক পেনশন নেয়া সম্ভব কিনা? উত্তরঃ EFT ছাড়া ম্যানুয়ালি চেকের মাধ্যমে মাসিক পেনশন নেয়া সম্ভব তবে তাকে পূর্বের বকেয়া পরিশােধ পূর্বক EFT এর আওতায় আসতে হবে। একটানা ১২ মাস যাবৎ পেনশন না নিলে পরবর্তীতে পেনশন নিতে। হলে পেনশনার কর্তৃক আবেদন দাখিল করতে হবে অথবা স্বশরীরে উপস্থিত হয়ে পেনশন নিতে হবে।

পেনশনারদের জন্য সুখবর! ঘরে বসে লাইভ ভেরিফিকেশন / পেনশন অ্যাপ ২০২২

এখন প্রতি বছর ১১ তম মাসে ঘরে বসে পেনশনার লাইভ ভেরিফিকেশন করা যাবে।

পেনশন অ্যাপ ২০২২

Caption: Life Verification From Home / Pensioner Verification App

অনলাইনে লাইভ ভেরিফিকেশন করার নিয়ম ২০২২

  • প্রথম ধাপ: খুবই সহজ অনলাইন হতে মোবাইলে একটি অ্যাপ ইনস্টল করুন।
  • দ্বিতীয় ধাপ: এনআইডি এবং ইপিপিও নম্বর ব্যবহার করে অ্যাপে প্রবেশ করুন।
  • তৃতীয় ধাপ: লাইভ ভেরিফিকেশন বক্সে ক্লিক করুন। (লাইভ ভেরিফিকেশন করা থাকলে পুনরায় করতে পারবেন না।)
  • ৪র্থ ধাপ: ছবি তুলুন মোবাইলে, পুনরায় ছুটি তুলুন।
  • ৫ম ধাপ: দুটি ছবি তুলে ফেস যাচাই হলেই ভেরিফিকেশন সম্পন্ন হয়ে যাবে।
  • ৫ সেকেন্ডে ভেরিফিকেশন Complete !
  • সতর্কতা: আলো প্রতিফলিত হয় এমন বস্তু যেমন-মনিটর, টিভি স্ক্রীন, আয়না ইত্যাদি এড়িয়ে ছবি তুলুন। পর্যাপ্ত আলোতে ছবি তুলুন। পর পর দুইটি ছবি তুলুন। চশমা অথবা মাস্ক পরা থাকলে তা খুলে ফেলুন।

চেহারার বড় পরিবর্তন হলে কি অ্যাপ ফেস যাচাই করতে পারবে?

চেহারা যাচাই পদ্ধতি কিভাবে সম্পন্ন হয়? – আপনি যদি বড় দাড়ি রেখে দেন বা আপনার চেহারায় বড় পরিবর্তন আনেন তবে সার্ভারে থাকা ছবির সাথে ভেরিফাইয়ের জন্য তোলা ছবি ম্যাচ করবে না। স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতিতে ফেস যাচাই বা আর্টিফিশিয়াল ইন্টিলিজেন্স আপনাকে চিনতে পারবে না। এক্ষেত্রে আপনাকে হিসাবরক্ষণ অফিসে গিয়েই ফেস যাচাই বা লাইভ ভেরিফিকেশন করতে হবে।

বিস্তারিত জানতে ভিডিও দেখুন……………

Life Verification অ্যাপ সংগ্রহ করুন: ডাউনলোড

যদি কিছু দিন আগে লাইভ ভেরিফিকেশন করে থাকেন তবে আপনাকে ম্যাসেজ দেখাবে “ আপনার পরবর্তী লাইভ ভেরিফিকেশনের সময় ফেব্রুয়ারী ২০২৩ অনুগ্রহ করে নির্ধারিত সময়ে ভেরিফিকেশন করুন”

Life Verification app। যেতে হবে না এজি অফিসে!